রাজধানীতে কিশোরগ্যাংয়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৬,আটক ১১ « বাংলাখবর প্রতিদিন

রাজধানীতে কিশোরগ্যাংয়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৬,আটক ১১

স্টাফ রিপোর্টার
আপডেটঃ ১০ জুন, ২০২৪ | ১০:০৪
স্টাফ রিপোর্টার
আপডেটঃ ১০ জুন, ২০২৪ | ১০:০৪
Link Copied!
প্রতীকী ছবি -- দৈনিক বাংলাখবর প্রতিদিন

রাজধানীসহ দেশজুড়ে বর্তমানে আতঙ্ক ও যন্ত্রণার আরেক নাম কিশোর গ্যাং। এবার রাজধানীর উত্তরায় তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে কিশোর গ্যাংয়ের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। যন্ত্রণাময় এই কিশোরগ্যাংদের মারামারিতে আহত হয়েছে ৬ জন। জানা যায়, উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টরের ২৪ নম্বর সড়কের ১৭ নম্বর বাসার সুপার হোস্টেলের সামনে শনিবার (৮ জুন) সন্ধ্যার পর জয় ও জিলানীর দুই কিশোর গ্যাং গ্রুপের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পাল্টাপাল্টি দুই মামলায় উভয় গ্রুপের ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রোববার (৯ জুন) সংঘর্ষ ও মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় মো. জিএম জিলানীর (১৮) মাথায় ৫টি সেলাই, রাহি সায়মান তালহার (১৮) মুখসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ১০টি সেলাই, ওয়াসিফের (১৮) বাম হাতের রগ কেটে গেছে, রুবেল হোসেন জয়ের (২৮) বাম হাতের বাহুতে চারটি সেলাই, মোস্তাফিজুর রহমান অভির (২২) বাম হাতে চারটি সেলাই, রকি ইসলামের (২৫) ডান হাতের আঙুল ফেটে যায়।

বিজ্ঞাপন

তবে হামলার পর থেকে তথ্য দেওয়া নিয়ে গড়িমসি শুরু করেন উত্তরা পশ্চিম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হাসান মুনশি। উত্তরার বাসিন্দাদের অভিযোগ, কিশোর গ্যাংয়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর থেকে উত্তরার বিভিন্ন জায়গা থেকে উঠতি বয়সী যুবকদের আটক করে বেপরোয়া সামারি শুরু করেন এসআই হাসান মুনশি। রাত ১১টার দিকে থানায় গিয়ে দেখা যায়, ৮-১০ জন আটক রয়েছে।

ওই সময় থানার ডিউটি অফিসার বলেন, ‘ঘটনা রাত ৮ টার। আমি ৮টার পরে ডিউটিতে আসছি। তাই কিছু জানি না।’ অন্যদিকে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বি এম ফরমান আলীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এরপর রাত সাড়ে ৩টায় দিকে থানায় দেখা যায়, ‘আটক মানুষে হাজত পরিপূর্ণ। মাথা ফাটা অবস্থায় জিলানী নামের একজনকে হাজতখানার বাইরে লকাপে। ডিউটি অফিসারের রুমের পেছনের বারান্দাতেও রয়েছেন কয়েকজন আটক ব্যক্তি। ওই সময় এসআই হাসান মুনশি আটককৃতদের নাম ঠিকানা লকাপের ভেতরে লিপিবদ্ধ করতে। বের হওয়ার পর সংঘর্ষ ও আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখন কোনো তথ্যই দেওয়া যাবে না। আপনি কাল আসেন।’ পরের দিনদুপুরে তাঁকে থানায় গিয়েও পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

পরে মুঠোফোনে কিশোর গ্যাংয়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তারের বিষয়ে জানতে চাইলে এস আই হাসান মুনশি গণমাধ্যমে বলেন, ‘মামলার আসামি ও গ্রেপ্তারের বিষয়ে আপনি কি প্রশ্ন করতে পারেন? আপনাকে তথ্য দেওয়া যাবে না। আপনি আমার কাছে তথ্য চাইতে পারেন না।’ তিনি বলেন, ‘মামলা হয়েছে। আগে তদন্ত হোক। পরে দেখা যাবে।’

ঢাকার আদালতের জিআর শাখা সূত্রে জানা গেছে, হামলার ঘটনায় দুটি মামলা হয়েছে। ওই দুই মামলায় এক গ্রুপের ৬ জন ও আরেক গ্রুপের ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জানা যায়, একটি মামলার বাদী জিএম জিলানীর বাবা ওয়াহেদুজ্জামান খান। তার মামলায় জয় চৌধুরীকে প্রধান আসামি করে অভি চৌধুরী, সিয়াম (২০), মানিক (২০), তৌহিদ (২২),শাকিল (২২), শান্তসহ (২২) অজ্ঞাতনামা ১৬-২০ জনকে আসামি করা হয়েছে। অন্য মামলাটির বাদী রুবেল হাসান জয়ের বাবা মমিনুর রহমান। তিনি জিলানীকে প্রধান আসামি করে সোহানুর রহমান (৩৫), তালহা (১৯), সিজান (২০), সিনহা (১৯), মিথিল (২০), নাজমুল (২২), রাফি সামস আলিফ (১৬), সাফিন (২০) সহ অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

ওয়াহেদুজ্জামান খান মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, জয় ও অভি আমার ছেলে জিলানীকে প্রায়ই বলত, তোর বাবা রাজনীতি করত, এখন ব্যবসা করে টাকা কামাইতেছে। শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ছেলে আমাকে ফোন দিতে বলে, জয় ও অভি লোকজন তাকে আটক করেছে। খবর পেয়ে গিয়ে আমার ছেলে, তার বন্ধু তালহা ও ওয়াসিফকে গুরুতর রক্তাক্ত আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই। প্রাথমিক চিকিৎসা পড় কিছুটা সুস্থ হলে তাঁরা জানায়, ওরা ৭ নম্বর সেক্টরের ২৪ নম্বর রোডে হাঁটাহাঁটির সময় হামলাকারীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গতিরোধ করে। তখন পথরোধের কারণ জানতে চাইলে জয় ও অভি তাদের সঙ্গে থাকা ছুরি দিয়ে জিলানীর মাথায় জখম করে। পরে তালহা ও ওয়াসিফ এগিয়ে গেলে তাঁদের শরীরের বিভিন্ন স্থানেও জখম করে।

অন্যদিকে মমিনুর রহমান এজাহারে উল্লেখ করেন, ফোন পেয়ে জানতে পারি সুপার হোস্টেলের সামনে আমার ছেলের জয় ও অভিকে কারা যেন মারপিট করতেছে। পরে দ্রুত সেখানে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় জয়, অভি ও তাঁদের বন্ধু রকিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই। কিছুটা সুস্থ হলে তারা জানায়, সোহান আমার আমার বড় ছেলে জয়কে ফোন করে বলে, অভির সঙ্গে পড়বে একটা ঝামেলা আছে, সেটি মিটানোর জন্য হোস্টেলের সামনে যেতে। পরে তারা গেলে তাদের ওপরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা করে।

বিষয়ঃ:

শীর্ষ সংবাদ:
কালিগঞ্জের বিষ্ণুপুরে মন্দিরের প্রসাদ খেয়ে শিশুর মৃত্যু, চিকিৎসাধীন ৭০ জন নরসিংদীতে আবারো পল্লী বিদ্যুতের হরিলুট, মাঠকর্মী আটক ! ন্যুরেমবার্গ মুট কোর্টের চূড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ নিয়ে শঙ্কা ! আ.লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা পাটুরিয়া ঘাটে বাস চালকদের সিন্ডিকেট, যাত্রী হয়রানি চরমে ঈদের দিনে আনন্দের পরিবর্তে পরিবারে নেমে এলো শোকের ছায়া এবারের ঈদে রুবি মাল্টিমিডিয়ার “ভালোবাসায় রাখি তোমায়” হোমনার দুলালপুরে ঈদ উপলক্ষে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ হোমনায় প্রান্তিক কৃষকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত উন্মুক্ত উদ্ভিদ পাঠশালায় শোভাবর্ধক গাছ বিতরণ নব-নির্বাচিত শৈলকুপা ও হরিনাকুন্ডু উপজেলা চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ হোমনায় বাড়ির ছাদে ড্রাগন চাষে সফলতা নরসিংদীতে পাঁচশত অসহায় ও দুস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ নরসিংদীর শিবপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ নরসিংদীতে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন টাঙ্গাইল জেলার সকল থানার অফিসার ইনচার্জগনের সমন্বয়ে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি ২৪-২৫ সাক্ষর রাজধানীতে কিশোরগ্যাংয়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৬,আটক ১১ সখীপুরে সাপের কামড়ে প্রাণ গেল এক শিশুর টেন্ডার ছাড়াই সরকারি গাছ উপড়িয়ে ফেলার অভিযোগ উপজেলা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে সখীপুরে প্রয়াত এস,এম আজহারুল ইসলাম স্যারের ১৫তম মৃত্যু বার্ষিকী