২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে ছুটছেন জেলেরা « বাংলাখবর প্রতিদিন

২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে ছুটছেন জেলেরা

মোঃ নাসির উদ্দিন জুয়েল বিশেষ প্রতিনিধি, বাংলাদেশ
আপডেটঃ ২৯ অক্টোবর, ২০২২ | ১২:৩৫
মোঃ নাসির উদ্দিন জুয়েল বিশেষ প্রতিনিধি, বাংলাদেশ
আপডেটঃ ২৯ অক্টোবর, ২০২২ | ১২:৩৫
Link Copied!
২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে ছুটছেন জেলেরা -- দৈনিক বাংলাখবর প্রতিদিন

ইলিশের প্রজনন মৌসুম নিরাপদ করার লক্ষ্যে দেশের নদ-নদী ও বঙ্গোপসাগরে ইলিশ ধরায় ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শুক্রবার মধ্যরাতে (২৯ অক্টোবর) শেষ হয়েছে। এ অবস্থায় রাত থেকেই সাগরে ছুটতে শুরু করেছেন জেলেরা। তবে, ঝড়-ঝঞ্জা থামলেও সাগর এখনও উত্তাল। এ অবস্থায় খুলনার জেলেরা সাগরে রওনা হওয়ায় উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা কাজ করছে স্বজনদের মধ্যে।

পাইকগাছার হেতামপুর জেলে পল্লির রাম বিশ্বাস বলেন, “সাগরের হঠাৎ হঠাৎ দুর্যোগ হচ্ছে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ভয়ঙ্কর রূপ নেয়। আমরা আগে লাইফ জ্যাকেট, বয়া কিছু পেতাম না। একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নিরাপত্তা সরঞ্জাম, তাবু দিচ্ছে। রান্নার জন্য এলপি গ্যাস নিচ্ছি। সুন্দরবনের কাঠ, গাছ দরকার হচ্ছে না। কাঠের বদলে এখন লোহার তৈরি নোঙর ব্যবহার করছি।”

মাহমুদকাটি এলাকার রবিন বিশ্বাস বলেন, “আগামী এপিল পর্যন্ত সাগরে অবস্থান করবো। তবে ঘন ঘন দুর্যোগ, বৈরী আবহাওয়ায় শঙ্কা দেখা দিয়েছে।”

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, “এক সময়ে ঘণ্টা দেড়েক নৌকা চালিয়ে চাহিদামতো মাছ পেতাম। এখন সেখানে তিন থেকে চার ঘণ্টা সময় লাগে। বহিরাগত জেলেদের জন্য আমরা অসহায়। ওরা দিনে দুই-তিন টন মাছ শিকার করে। সেখানে আমাদের অর্জন মাত্র চার-পাঁচ মণ। সাগরে মাছ ধরা ছাড়া আমরা কিছুই করতে পারি না। তাই নিষেধাজ্ঞা আর দুর্যোগের কবলে আমরা বছরের অর্ধেক সময়ই কর্মহীন থাকি।”

পাইকগাছা উপজেলার রামনাথপুর মৎস্যজীবী ভোলানাথ বিশ্বাস বলেন, “সাগরের আবহাওয়া আগের তুলনায় অনেকটাই পাল্টে গেছে। প্রকৃতি দেখে আবহাওয়া আঁচ করা গেলেও সম্প্রতি পরিস্থিতি পাল্টে গেছে। বর্তমানে আকস্মিক সাগর উত্তাল হয়ে উঠছে। ফলে অনেক সময় প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সরঞ্জামের সংকটে পড়তে হয়।”

তিনি আরও বলেন,“সমুদ্রে প্রচুর সম্পদ। কিন্তু আমরা তো কিছুই আনতে পারছি না। উল্টো জীবন নিয়ে ফিরে আসাও অনেক সময় কষ্টকর হেয়ে পড়ে। অন্য দেশের জেলেদের দাপটে টিকে থাকা দায়। ওদের এক কোটি, দেড় কোটি টাকার দামের বোট, আধুনিক জাল, মাছ ধরার সরঞ্জামের কাছে আমাদের ৫০টি নৌকাও টিকতে পারি না। আমরা মহাজনের কাছ থেকে লাখে ৩০ হাজার টাকা সুদ নিয়ে সাগরে যাই। সুদ দেবো, না লোন দেবো—তা নিয়ে চিন্তায় থাকি। তবে সরকারিভাবে সহযোগিতা পেলে আমরা দৃঢ়তার সঙ্গে টিকে থাকতে পারতাম।”

বিজ্ঞাপন

বিষয়ঃ:

শীর্ষ সংবাদ:
ইবিতে বাসের সিটে বসা নিয়ে বাকবিতণ্ডা, হত্যাচেষ্টার অভিযোগ শেরপুরের গজনীতে বাস চাপায় প্রাণ গেলো আইসক্রীম বিক্রেতার নাটোরে সমকামী স্কুল ছাত্রীর বিয়ের খবরে চাঞ্চল্য মহেশপুরে বিদ্যুতের সাব-স্টেশন নির্মানে বালুর বদলে মাটি দিয়ে ভরাটের অভিযোগ কুড়িগ্রামে পাথরবাহী ট্রাকের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই স্কুলছাত্র নিহত ঝিনাইদহে ২ দিন ব্যাপী কারাতে সেমিনারের উদ্বোধন ঝিনাইদহে ডিবি পুলিশের অভিযানে ১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার এক সখীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সন্ত্রাসী হামলার শিকার ষাটোর্ধ বৃদ্ধা শাহজাদপুরে বজ্রপাতে এক যুবকের মৃত্যু গনতন্ত্রের বিজ্ঞাপন বিরতি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার জনপ্রতিনিধি ও অফিসারবৃন্দের সাথে সংসদ সদস্যের মতবিনিময় সভা শহীদদের প্রতি শাহজাদপুর উপজেলা গণ-অধিকার পরিষদের বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন সাভারে ওয়াসিল উদ্দিন পাঠাগারের উদ্যোগে তেঁতুলঝোড়া বইমেলা ২০২৪ উদ্বোধন সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক মাসুদ রানার পিএইচডি ডিগ্র ফিলিস্তিনি দুই শিক্ষার্থীর পাশে রাজশাহীর কাউন্সিলর নিজামুল আজম রাজারহাটে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রধান শিক্ষকের আত্মহত্যা কোটচাঁদপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে চাউল ব্যাবসায়ীকে জরিমানা ঝিনাইদহে সীমান্তে ভারতীয় নাগরিকসহ ২০ জন আটক সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে মাদক কারবারিদের হামলার শিকার সাংবাদিক ছাত্র অধিকার পরিষদের ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন